পিটার ডিঙ্কলেজ  পিটার ডিঙ্কলেজ

নানান বাঁধা বিপত্তি ও শারীরিক ত্রুটিকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে আজ যিনি বিখ্যাত হলিউড তারকা!

পিটার ডিঙ্কলেজ একজন মার্কিন অভিনেতা ও প্রযোজক। গেম অব থ্রোনস টিভি সিরিজে অভিনয় করে তুমুল জনপ্রিয়তা পেয়েছেন। কাজ করেছেন এক্সম্যান: ডেইজ অব ফিউচার পাস্ট, দ্য ক্রনিকলস অব নার্নিয়া: প্রিন্স ক্যাসপিয়ানের মতো চলচ্চিত্রে। চার ফুট পাঁচ ইঞ্চি উচ্চতার মানুষটি এরই মধ্যে জিতে নিয়েছেন গোল্ডেন গ্লোব, প্রাইমটাইম অ্যামি অ্যাওয়ার্ডসহ বহু পুরস্কার। যুক্তরাষ্ট্রের বেনিংটন কলেজে নাট্যকলায় পড়েছেন তিনি।

 

ডিঙ্কলেজ যুক্তরাষ্ট্রের নিউজার্সি রাজ্যে জন্মগ্রহণ করেন। তার বাবা বিমা কোম্পানিতে চাকরি করতেন আর মা ছিলেন গানের শিক্ষক। তার মা বাবার উচ্চতা স্বাভাবিক মানুষের মতোই। তবে জিনগত সমস্যার কারণে জন্ম থেকে ডিঙ্কলেজ এক ধরনের রোগে আক্রান্ত হন। এর ফলে তিনি অন্য শিশুর মতো লম্বা হওয়ার সুযোগ হারান।

মা বাবার যত্নে দিন দিন বড় হয়ে ওঠেন ডিঙ্কলেজ। কৈশোরে প্রবেশের পর তিনি অত্যন্ত স্পর্শকাতর হয়ে ওঠেন। তিনি তামাক খেতে শুরু করেন। তবে বড় হয়ে ওঠার সঙ্গে সঙ্গে তিনি বিষয়টি উপলব্ধি করতে শেখেন এবং ধীরে ধীরে হাস্যরস এবং বিনয়ী আচরণের মাধ্যমে নিজের উচ্চতা সমস্যা মোকাবিলা করেন।

 

আসলে অনেকেই ছোটবেলায় ডিঙ্কলেজের মতো নানান সমস্যার মুখোমুখি হয়েছেন। কারণ সবাই নিখুঁত বা নির্ভুল নয়। আমাদের শরীরে নানা রকম ক্রুটি আছে। কোনো কোনো লোক নিজের ক্রুটি নিয়ে মাঝেমাঝে খুব খারাপ বোধ করেন। তবে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো কিভাবে নিজের সীমাবদ্ধতাগুলো মেনে নিয়ে সামনে এগিয়ে যাওয়া যায়।

পিটার ডিঙ্কলেজ স্বাভাবিক মাথা নিয়ে জন্মেছিলেন, কিন্তু শরীরটা ছিল খাটো।  তিনি এমন একটা বংশগত রোগে ভুগছিলেন যেটা হাড়ের বৃদ্ধিতে প্রভাব ফেলে।  তিনি ছিলেন তাঁর পরিবারের একমাত্র বামুন ব্যক্তি। যুবক অবস্থায় এটা মেনে নিতে তার খুব কষ্ট হয়। বড় হতে হতে মানিয়ে নিতে না পারায়, তার ভেতরে তিক্ততা এবং রাগ জন্মায়। পিটার ডিঙ্কলেজ অভিনয়ের প্রতি প্যাশন বেছে নেন।

 

কারণ এটা তার ভেতরের নেতিবাচক শক্তিকে দূরে সরিয়ে রাখতো। গ্রাজুয়েশন সম্পন্ন করার পর, অভিনয়ের প্রতি তার প্যাশনকে অনুসরণ করতে নিঃস্ব অবস্থায় নিউইয়র্কে চলে যান। বন্ধুদের অ্যাপার্টমেন্টের সোফায় ঘুমিয়েছেন রাতের পর রাত। অভিনয় করার জন্য একটা রোল জোগাড় করার আগে বেশ কয়েক মাস পিয়ানো মোছার কাজ‌ও করেছেন। ৪ ফুট ৫ ইঞ্চি উচ্চতার এই মানুষটি ক্ষুদে পরীর ভূমিকায় অডিশন দিতে অস্বীকার করেন।

 

একবার স্টেজে অভিনয় করার সময় দুর্ঘটনাক্রমে তিনি পড়ে যান। এ কারণে তার গলা থেকে চোখের ভ্রু পর্যন্ত একটি কাটা দাগ পড়ে যায়। ১০ বছর ছোটখাটো রোল আর স্বল্প উপস্থিতির চরিত্রে কাজ করার পর তিনি 'গেম অফ থ্রোনস' এ একটি রোল পান, যা তার ভাগ্য বদলে দেয়। বর্তমানে পিটার ডিন্কলেজ টিভিতে অভিনয় করা সর্বোচ্চ পারিশ্রমিকপ্রাপ্তদের একজন ‌।

"সারা বিশ্বকে একথা বলার দরকার নেই যে আপনি প্রস্তুত। এটা করে দেখান।" - পিটার ডিন্কলেজ।

তার গল্পটি একটা বিষয়ে শিক্ষা দেয়..

একবার যদি আপনি আপনার সীমাবদ্ধতা গুলোকে মেনে নিতে পারেন, কেউ সেটাকে আপনার বিরুদ্ধে ব্যবহার করতে পারবে না। এমনভাবে আপনার সীমাবদ্ধতাগুলো কে মানিয়ে নিন, যাতে সেটা অন্যদের জন্য অনুপ্রেরণাদায়ী হয়।



জনপ্রিয়