ভুয়া পুলিশ ভুয়া পুলিশ

যেভাবে ভুয়া পুলিশ চিনে নিজেকে রক্ষা করতে পারবেন!

কীভাবে চেনা যাবে এসব ভুয়া পুলিশকে? এ বিষয়ে কয়েকটি বৈশিষ্ট্যের কথা জানিয়েছেন পুলিশের উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ। এগুলো হলো :

১. ব্যবহৃত ওয়াকিটকি চালু আছে কিনা লক্ষ করুন। ভুয়া পুলিশ সদস্যদের ওয়াকিটকি কখনও চালু থাকে না এবং কোনো শব্দও পাওয়া যায় না। কারণ সেটি খেলনা ওয়াকিটকি।

২. সাদা পোশাকে পুলিশ কোনো অভিযান পরিচালনা করলে অবশ্যই গায়ে জ্যাকেট পরিধান করে ও গলায় পরিচয়পত্র ঝোলানো থাকে। কিন্তু ভুয়া পুলিশ সদস্যরা বেশির ভাগ সময় কোনো ধরনের জ্যাকেট বা পরিচয়পত্র সঙ্গে রাখে না।

 

৩. ভুয়া পুলিশ চক্র সব সময় খেলনা পিস্তল ব্যবহার করে, তারা কখনোই লং আর্মস: যেমন শর্টগান বা এসএমজি সঙ্গে রাখে না।

৪. গতিবিধি ও আচরণ পর্যবেক্ষণ করুন। ভুয়া পুলিশ সদস্যরা বাসায় ঢুকেই টাকা, অলংকার ও মূল্যবান মালামাল নেওয়ার জন্য ব্যস্ত হয়ে পড়ে। তাদের আচরণে উগ্রতা ও রুক্ষভাব পরিলক্ষিত হয়।

 

৫. এই চক্রের সদস্যদের পারস্পরিক কথোপকথন পর্যবেক্ষণ করার চেষ্টা করুন। এরা অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে এবং চোর ডাকাতের মতো আচরণ করতে থাকে।

ভুয়া পুলিশ দেখলে করণীয়ঃ

 


ভুয়া পুলিশের ঝামেলায় পড়লে বা মুখোমুখি হলে কৌশলে নিকটস্থ থানা বা আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যদের অবহিত করুন। যদি শতভাগ নিশ্চিত হওয়া যায় যে এরা ভুয়া পুলিশ সদস্য এবং ব্যবহৃত অস্ত্রটিও খেলনা তাহলে সঙ্গে সঙ্গে সাহসিকতার সঙ্গে তাদেরকে প্রতিহত করুন ও পুলিশকে খবর দিন এবং আপনার এলাকার সংশ্লিষ্ট বিট অফিসারকে অবহিত করুন।

 
সূত্র: ডিএমপি নিউজ, কৃতজ্ঞতাঃ Manna Dey, ASP, Bangladesh police.



জনপ্রিয়