আইনস্টাইন ও টমাস আলভা এডিসান.. আইনস্টাইন ও টমাস আলভা এডিসান..

বিখ্যাত এই ব্যক্তিরা ব্যর্থ হয়েছিলেন বলেই সফলতার দেখা পেয়েছিলেন!

পৃথিবীতে সফল ব্যক্তিদের প্রায় সবাই চেনে । আর তাদের সফল হওয়ার পেছনে অনেক কারণ থাকে। থাকে অনেক ব্যর্থতাও। কেউ ১ দিনে সফল হয় না। আমরা সবাই চেষ্টা করি। কিন্তু হয়ত আমাদের সকল চেষ্টা সফল হয় না। এর পিছনেও কিছু কারণ আছে। যদি একবার চেষ্টা করেই সবাই সফল হয়ে যায় তাহলে পৃথিবীতে কারও কোনো কমতি থাকবেনা। আর কমতি না থাকলে মানুষের জীবন ধারা পালটে যাবে,যা কোনো দিন সম্ভব না। আপনি যদি ব্যর্থ হন তাহলে এটা ভেবে নিবেন যে আর একটু চেষ্টা করলেই আপনার সাফল্য আসবে।

জীবনের যে কোন সময়ে ব্যর্থতা আসতে পারে, কিন্তু তাতে ভেঙ্গে পড়া উচিত নয়। পৃথিবীতে প্রচুর সফল মানুষ আছেন যারা প্রথম জীবনে এক বা একাধিকবার ব্যর্থতার মুখোমুখি হয়েছেন। জেনে নিন প্রথমে ব্যর্থ হয়েও জীবনে অবিশ্বাস্য সফলতার মুখ দেখা ব্যক্তি সম্পর্কে।

জে.কে.রাউলিং

SOURCE: NME.com

SOURCE: NME.com

তিনি একজন ব্যর্থ লেখিকা ছিলেন। তার মা মারা যাওয়ার পর তিনি খুব উদাস হয়ে গিয়েছিলেন এবং তার বিবাহ বিচ্ছেদ হয়। তার লিখা গল্প হেরি পটার, প্রায় সব পাবলিশার এর কাছ থেকে অস্বীকৃত হয়।বর্তমানে তিনি পৃথিবীর সবচেয়ে ধনী লেখিকা । তার হেরি পটার বইটি পৃথিবীর সবচেয়ে বেশি বিক্রয় হওয়া বই।

 

টমাস আলভা এডিসন

TreeHugger

TreeHugger

নাকে ত সবাই চেনেন । উনার নাম শুনেন নি এমন লোক পৃথিবীতে খুব কমই আছে। ছেলে বেলায় তার শিক্ষক তাকে বলেছিলেন যে, তিনি কোনো দিন কিছু শিখবেন না । যখন তিনি বাল্ব আবিস্কার করার চেষ্টা করছিলেন তখন তিনি ৯০০০ বার ব্যর্থ হন। তিনি বলেন, তিনি ব্যর্থ হন নি। তিনি আরও বলেন যে, আমি শিক্ষা পেয়েছি(বাল্ব আবিস্কারের সময়) এমন ১০০০০ বিভিন্ন উপায় আছে যেগুলো কাজ করবেনা। তিনি পৃথিবীর বিখ্যাত একজন বিজ্ঞানী যার ১০৯৩ টা প্যাটেন্ট আছে।

স্টিভ জবস

BGR.com

BGR.com

উনাকে তো পরিচয় করিিয়ে দিতে হবে না। তবুও বলছি। যখন তার বয়স ৩০, তিনি তার নিজের কোম্পানি নেক্সট থেকে বিতাড়িত হন। তারপর তিনি একেবারে ভেঙ্গে পড়েন। কিছু দিন পর অ্যাপেল নামে নতুন একটা কোম্পানি দেন। ১৯৯৬ সালে তিনি নেক্সট কে কিনে নেন। বর্তমানে তিনি পৃথিবীর সবচেয়ে প্রভাবশালী মানুষ হিসেবে পরিচিত।

 

ওয়াল্ট ডিজনি

pandamoniumpublishing.com

pandamoniumpublishing.com

ছোট বেলায় অনেক কার্টুন দেখেছি এবং ওয়াল্ট ডিজনি নামটার সাথে বেশ পরিচিত। এটা একজন ব্যক্তির নাম। তিনি একটা পত্রিকায় কার্টুন আর্টিস্ট হিসেবে কাজ করতেন। পত্রিকার মালিক তাকে চাকরিচ্যুত করেন এই বলে যে, তার কল্পনা করার শক্তি নাই এবং তার মধ্যে ক্রিয়েটিভ আইডিয়া নাই। তিনি ওয়াল্ট ডিজনি নামে একটা কোম্পানি দেন এবং তার বাসার গেরেজ এ তার অফিস খোলেন। তিনি বর্তমানে একজন আন্তর্জাতিক আইকন এবং বিনোদন জগতে তার নাম অমর। ওয়াল্ট ডিজনি বর্তমানে হলিউডের একটা বিখ্যাত কোম্পানি। যার বাৎসরিক আয় ৪০ বিলিয়ন ডলার ।

 

আলবার্ট আইনস্টাইন

csmonitor.com

csmonitor.com

তিনি জন্মের ৪ বছর পর্যন্ত কথা বলতে পারেননি । তিনি জীবনে কিছুই শিখবেন না এটা তার শিক্ষকগণের মতামত ছিল। সাধারণ আপেক্ষিকতা এবং বিশেষ আপেক্ষিকতা তত্ব তারই আবিস্কার। বিজ্ঞানের সবচেয়ে শক্তিশালী সমীকরণ E=mc^2 তার সৃষ্ট। তিনি একজন নোবেল বিজয়ী। পদার্থ বিজ্ঞানে তার অবদান অসীম ।তব এই মনিষীগণ কখনও চেষ্টা ছাড়েননি। তাই আমি আর আপনি আজ তাদের নিয়া কথা বলছি। চেষ্টা করতে থাকুন, হয়ত কয়েক বছর পর আমন করেই আপনাকে নিয়ে কথা বলবে মানুষ।

ভুল থেকেই সঠিক পথের দিশা পাওয়া যায়। ব্যর্থতা থেকেই সফলতার বুনিয়াদ তৈরি হয়। সাথে থাকার জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ...ভরসা রাখুন নিজের উপর... 



জনপ্রিয়